সাতক্ষীরা সদরে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এ ১১শ’ ৫০ জন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ, রাসায়নিক সার ও পরিচর্যা বাবদ নগদ সহায়তা প্রদান

স্টাফ রিপোর্টারঃ সাতক্ষীরায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল’এ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ভূট্টা বীজ, মুগ বীজ, রাসায়নিক সার ও পরিচর্যা বাবদ নগদ সহায়তা (মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে) কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (০২ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে সদর উপজেলা কৃষি অফিসের আয়োজনে জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সদর ০২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি জি এম নুর ইসলাম, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামার বাড়ি সাতক্ষীরার উপ-পরিচালক অরবিন্দ বিশ^াস, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবাশীষ চৌধুরী, পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আবু সায়ীদ, সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. আমজাদ হোসেন, দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার সিনিয়র সহ-সম্পাদক শেখ তহিদুর রহমান ডাবলু, উপ-সহকারি কৃষি অফিসার অমল ব্যানার্জী, রঘুজিৎ কুমুর গুহ, আব্দুস সাত্তার ও সদর উপজেলা রাইচ মিল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বাবু প্রমুখ। এসময় সদর উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এ ক্ষতিগ্রস্ত ১১শ’ ৫০জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ভূট্টা বীজ, মুগ বীজ, রাসায়নিক সার ও পরিচর্যা বাবদ নগদ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

সদর উপজেলা ৫০০ জন ভূট্টা চাষীর মধ্যে জনপ্রতি ০২কেজি ভূট্টা বীজ, ২০কেজি ডিএপি সার, ১০কেজি এমওপি সার এবং পরিচর্যা বাবদ ৫০০ টাকা, ২০০জন শীতকালীন/গ্রীষ্মকালীন মুগ চাষীদের মধ্যে জনপ্রতি ০৫কেজি মুগ বীজ, ১০কেজি ডিএপি সার এবং ১০কেজি এমওপি সার, পরিচর্যা বাবদ ৫০০ টাকা এবং ৪৫০ জন বসতবাড়িতে শাক সবজি চাষীদের মধ্যে জনপ্রতি ০.০২কেজি শাক বীজ, ০.০২কেজি করলা বীজ, ০.০৩কেজি ঝিঙ্গা বীজ, ০.০১কেজি বেগুন বীজ ও ০.০৩কেজি মিষ্টি কুমড়া বীজ এবং ১কেজি ডিএপি সার, ও ১০কেজি এমওপি সার ও পরিচর্যা বাবদ ৫০০ টাকা বিতরণ করা হয়। এসময় সদর উপজেলার কৃষি অফিসার ও ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।

পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *